একই দিনে জন্ম, করোনায় আক্রান্ত হয়ে একই দিনে মৃত্যু দুই যমজ ভাইয়ের

একই দিনে জন্ম, করোনায় আক্রান্ত হয়ে একই দিনে মৃত্যু দুই যমজ ভাইয়ের

ডেস্ক রিপোর্টঃ



জন্ম হয়েছিল তাদের একই দিনে, মাত্র তিন মিনিটের ব্যবধানে। যমজ দুই ভাইয়ের পড়াশোনা-পেশা সবই ছিল একসঙ্গে। অভিন্ন হৃদয় দুই ভাই করোনায়ও আক্রান্ত হয়েছিলেন একই দিনে। নিয়তির অদ্ভূত খেলায় তাদের মৃত্যু হয়েছে মাত্র কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে। ভারতের মিরাঠে এ ঘটনা ঘটেছে বলে মঙ্গলবার জানিয়েছে টাইমস অব ইন্ডিয়া।

১৯৯৭ সালের ২৩ এপ্রিল জন্ম হয়েছিল জোফ্রেড গ্রেগরি ও রালফ্রেড গ্রেগরি নামে যমজ দুই ভাইয়ের। দেখতে একইরকম দুই ভাই পড়াশোনা করেছেন কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ারিং নিয়ে। চাকরি করতে হায়দারাবাদে।

গত ২৩ এপ্রিল তারা ২৪ বছরে পা দেন। জন্মদিনের ঠিক পরেই দুই ভাই করোনায় আক্রান্ত হন ।  প্রাথমিক অবস্থায় বাড়িতেই তাদের চিকিৎসা চলছিল।

তরুণদের বাবা মিরাটের ক্যান্টনমেন্ট এলাকার বাসিন্দা রেমন্ড রাফায়েল জানান, তার দুই ছেলের জ্বর আসতেই বাড়িতে একটি অক্সিমিটার কিনে ফেলা হয়। তবে তার ছেলেদের শরীরে অক্সিজেনের লেভেল ৯০-এর নিচে নেমে গিয়েছিল। চিকিৎসকের পরামর্শে তাদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ১ মে তিনি দুই ছেলেকেই হাসপাতালে ভর্তি করেন। প্রথমে তার এক ছেলের করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসে। দিন কয়েক পরেই রিপোর্ট নেগেটিভ আসে। 

তিনি বলেন, ‘চিকিৎসকরা আমার দুই ছেলেকেই কোভিড ওয়ার্ড থেকে সাধারণ আইসিইউতে নিয়ে যাবেন বলে ঠিক করেছিলেন। আমি তাদের আরও দুদিন সাধারণ ওয়ার্ডে রেখেই তাদের শারীরিক পরিস্থিতি নজরে রাখার কথা বলেছিলাম। এরপর ১৩ মে আমার স্ত্রীকে হাসপাতাল থেকে ফোন করা হয়। আমাদের গোটা পৃথিবীটাই যেন ভেঙে পড়ল।’

রাফায়েল বলেন, ‘তাদের এক জনের কিছু হলে আরেকজনেরও সেটা হতো। তাদের জন্মের পর থেকেই এমনটা হয়ে আসছে। জোফ্রেডের মৃত্যুর পর আমি আমার  স্ত্রীকে বলেছিলাম, রালফ্রেডও বাড়িতে আসছে না। তারা ১৩ ও ১৪ মে কয়েক ঘন্টার ব্যবধানে মারা যায়।’

রালফ্রেড হাসপাতালের বেডে শুয়ে শেষ ফোনটা তার মাকে করেছিল। ফোনে সে  জোফ্রেডের  শারীরিক পরিস্থিতি সম্পর্কে জানতে চেয়েছিল। তবে তার মা তাকে জানান, দিল্লির হাসপাতালে তার ভাইকে ভর্তি করা হয়েছে। 

মায়ের এই কথা শুনে রালফ্রেড বলেছিল, ‘মা তুমি মিথ্যা বলছ।’