কাজিপুরে শালিসি বৈঠকে হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর হামলা, আহত-১২, আটক ২

কাজিপুরে শালিসি বৈঠকে হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর হামলা, আহত-১২, আটক ২

কাজিপুর ডেস্কঃ



সিরাজগঞ্জের কাজীপুরে সালিশি বৈঠকে হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর হামলা ও মারপিটের ঘটনা ঘটেছে। এঘটনায় নারীসহ অন্তত ১২ জন আহত হয়েছেন। গত শুক্রবার বিকেল ৪ টায় উপজেলার বরইতলী হালদারপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। পরদিন শনিবার দুপুরে ৩২ জনের নামসহ অজ্ঞাত ১০-১৫ জনকে আসামী করে কাজীপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন অনীল চন্দ্র হালদারের পুত্র তপন চন্দ্র হালদার। এর আগে ঘটনার দিন রাতেই মৃত আব্দুর রহমানের পুত্র সাইদুল ইসলাম (৫০) ও আনসার আলীর পুত্র সাকিবুল হাসান শুভ (১৬) কে আটক করেছে থানা পুলিশ। এদিকে সিরাজগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) ফারহানা ইয়াসমিন শনিবার দুপুরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

থানায় দেয়া মামলা ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, গত মঙ্গলবার (৩ মে) দিবাগত রাত ২টার দিকে আবু সালেক নামের এক ব্যক্তি লক্ষণ হালদারের ঘরের সামনে সন্দেহজনক ঘোরাফেরা করছিলেন। এসময় হালদারপাড়ার লোকজন তাকে বেঁধে পিটুনি দেয়। পরে খবর পেয়ে রাতেই অভিভাবকরা সালেককে নিয়ে যান। 
এদিকে আবু সালেককে পেটানোর ঘটনায় স্থানীয় মুরুব্বিদের কাছে বিচার দাবী করেন তার পরিবার। বিষয়টি মিমাংসার লক্ষ্যে শুক্রবার (৬ মে) বিকেল ৪ টায় শালিসি বৈঠকের আয়োজন করা হয়। বৈঠকে হালদারপাড়ার লোকজন হাজির হওয়া মাত্র তাদের ওপর হামলা চালায় প্রতিপক্ষের ৭০-৮০ জন লোক। এসময় তাদের মারধরে অন্তত ১২ জন আহত হন। পরে আশঙ্কাজনক অবস্থায় বাসুদেব, অদ্বৈত হালদার ও বাবলু রাজবংশীকে বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠানো হয়। বাকিদের কাজীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। 

কাজীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শ্যামল কুমার দত্ত জানান, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এঘটনায় দুই জনকে আটক করা হয়েছে। বাকীদের আটকের চেষ্টা চলছে।