কামারখন্দে আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে সভাপতি সেলিম সম্পাদক আনোয়ার শেখ

কামারখন্দে আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে সভাপতি সেলিম সম্পাদক আনোয়ার শেখ

রাজ্জাক রাজ (কামারখন্দ)



কামারখন্দে আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে সভাপতি পদে সেলিম রেজা এবং সাধারণ সম্পাদক পদে আনোয়ার শেখ বিজয়ী হয়েছেন।

শনিবার (১৩ ফেব্রুয়ারী) সকাল এগারটার দিকে উপজেলার জামতৈল ধোপাকান্দি সরকারি উচ্চ বিল্যালয়ে দলীয় পতাকা ও জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে ত্রি- বার্ষিক সম্মেলনের উদ্বোধন করেন জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা কে এম হোসেন আলী হাসান।

সম্মেলনকে কেন্দ্র করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর জোর নিরাপত্তা ছিল। পর্যাপ্ত আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর নিরাপত্তা থাকায় কোন প্রকার অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি।
কামারখন্দ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মতিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সাংগঠনিক সম্পাদক (রাজশাহী বিভাগ দায়িত্ব প্রাপ্ত) এস এম কামাল হোসেন।

সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন শেখের সঞ্চালনায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডাঃ বেগম রোকেয়া সুলতানা, আওয়ামীলীগের কার্য্য নির্বাহী কমিটির সদস্য মেরিনা জাহান কবিতা, সিরাজগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক ও কামারখন্দ-সিরাজগঞ্জ সদর আসনের সংসদ সদস্য অধ্যাপক ডাঃ হাবিবে মিল্লাত মুন্না, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ সভাপতি ও কাজিপুর আসনের সংসদ সদস্য প্রকৌশলী তানভীর শাকিল জয়।

অন্যান্যের মধ্যে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার হোসেন রতু, সাবেক সভাপতি আব্দুল লতিফ বিশ্বাস, জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আবু ইউসূফ সূর্য, এ্যাডভোকেট বিমল কুমার দাস, সিরাজগঞ্জ পৌর মেয়র আব্দুর রউফ মুক্তা।


এছাড়াও বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুস ছামাদ তালুকদার, বাংলাদেশ মহিলা আওয়ামীলীগ যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জান্নাত আরা তালুকদার হেনরী। 

মোট ১৯৭ ভোটের মধ্যে সেলিম রেজা ৯৭ ভোট পেয়ে সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন। নিকট তম প্রতিদন্ধী মতিন চৌধুরী পেয়েছেন ৮৩ ভোট, মকবুল হোসেন ১১ ভোট, আনোয়ার হোসেন ৪ ভোট, রেজাউল করিম রাজা ১ ভোট। ১৯৭ ভোটের মধ্যে নষ্ট ভোট ১টি।

আনোয়ার হোসেন শেখ ৯৫ ভোট পেয়ে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকট তম প্রতিদন্ধী আশরাফুল সাইদী হিরা পেয়েছেন ৫১ ভোট, কামরুল হাসান আমিনুল ৪০ ভোট, সেলিম রেজা সেলিম ৮ ভোট, ১৯৭ ভোটের মধ্যে নষ্ট ভোট ৩টি।