কামারখন্দে জাল স্বাক্ষর দিয়ে বাল্যবিবাহ পড়ানোর অভিযোগ

কামারখন্দে জাল স্বাক্ষর দিয়ে বাল্যবিবাহ পড়ানোর অভিযোগ

আব্দুল্লাহ আল মারুফঃ



সিরাজগঞ্জের কামারখন্দ উপজেলায়  জাল স্বাক্ষর করে নিকাহ নামা তৈরি করে বাল্যবিবাহ পড়ানোর অভিযোগ উঠেছে নিকাহ রেজিস্ট্রার (কাজী)  মো. মোজ্জাম্মেল হকের বিরুদ্ধে। 

তিনি উপজেলার ৩ নং জামতৈল এর কাজী। 

এটি নিয়ে কন্যার বাবা শহিদুল ইসলাম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর লিখিত অভিযোগ করেছেন। 

লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা যায়,  উপজেলার চর কামারখন্দ গ্রামের শহিদুল ইসলামের মেয়েকে জাল স্বাক্ষর করে নিকাহ নামা তৈরি করেন ও বাল্যবিবাহ বিবাহ পড়ান। 

মেয়ের বাবা শহিদুল ইসলাম বলেন, আমি রেজিস্ট্রার এর সময় ছিলাম না তারপরেও রেজিস্ট্রারে আমার স্বাক্ষর দেখছি। রেজিস্ট্রার বা নিকাহ নামায় যে স্বাক্ষরটি দেখছি সেটি আমার না।

এ বিষয় ৩নং জামতৈল ইউনিয়নের নিকাহ রেজিস্ট্রার মো. মোজ্জাম্মেল হক জানান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর কে লিখিত দিয়েছে এবিষয়ে আমি এখনো কিছু জানি না৷ আর জাল স্বাক্ষরের বিষয়েও আমি কিছু জানি না। 

এ বিষয়ে কামারখন্দ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মেরিনা সুলতানা জানান, বাল্যবিবাহ রেজিস্ট্রারীতে জাল স্বাক্ষর প্রসঙ্গে একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি।  দুই পক্ষকেই শুনানির জন্য ডাকা হবে।  সত্যতা যাচাই করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।