প্রতিষ্ঠার ৪১ বছর পর অপারেশন থিয়েটার চালু হলো কামারখন্দ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে

প্রতিষ্ঠার ৪১ বছর পর অপারেশন থিয়েটার চালু হলো কামারখন্দ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে

স্টাফ রিপোর্টারঃ



সিরাজগঞ্জ কামারখন্দের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের প্রতিষ্ঠার ৪১ বছর পর অপারেশন থিয়েটার চালু হয়েছে।

বুধবার সকালে উপজেলার জটিবাড়ী গ্রামের স্বপন সরকারের স্ত্রী প্রসূতি হাফিজা খাতুনের সিজারিয়ানের মাধ্যমে আনুষ্ঠানিক অপারেশন চালু করা হয়।

প্রথম অপারেশন হওয়া হাফিজা খাতুনের দিনমজুর স্বামী স্বপন সরকার বলেন, আমার স্ত্রীর সমস্যার কারণে নরমালে সন্তান না হওয়ায় কামারখন্দ হাসপাতালে বিনামূল্যে সিজারিয়ান অপারেশন করা হয়েছে। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে অপারেশন চালু না করা হলে ধার দেনা করে বেসরকারি ক্লিনিক বা হাসপাতালে অপারেশন করা লাগতো।

কামারখন্দ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ ইব্রাহিম বলেন, ৪১ বছর পর অবশেষে অপারেশন চালু হয়েছে। এতোদিন অপারেশন সংশ্লিষ্ট চিকিৎসক না থাকায় এই হাসপাতালে অপারেশন চালু করা যাচ্ছিলো না। কামারখন্দে অপারেশন চালু হওয়ায় পাশবর্তী কয়েকটি উপজেলার রোগীরা এখান থেকে বিনামূল্যে সেবা পাবেন। এই হাসপাতালে সন্তান প্রসব হলেই নবজাতককে পুরস্কার দেওয়া হবে বলেও তিনি জানায়।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সুত্রে জানা যায়, ২০২২ সালের ২৩ আগস্ট উপজেলা স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনা কমিটির সমন্বয় সভায় অপারেশন থিয়েটার চালুর ঘোষণা দেন স্থানীয় সংসদ সদস্য অধ্যাপক ডা. হাবিবে মিল্লাত মুন্না।

১৯৮১ সালের ১১ জানুয়ারি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের উদ্বোধন করা হয়। পরে প্রায় ৬ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত একটি নতুন ভবন তৈরি করে ২০১৪ সালের ৪ এপ্রিল ৩১ শয্যা থেকে ৫০ শয্যায় উন্নীত করে উদ্বোধন করা হয়। ঐ বছরই নতুন ভবনে স্থাপন করা হয় অপারেশন থিয়েটার ও কেনা হয় প্রায় ৩০ লাখ টাকার যন্ত্রপাতি। অপারেশন থিয়েটারের জন্য প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি থাকলেও অপারেশনের নির্ধারিত চিকিৎসক না থাকায় অপারেশন চালু করা যাচ্ছিলো না।

আনুষ্ঠানিক ভাবে অপারেশন থিয়েটার উদ্বোধনের সময় সিভিল সার্জন রামপদ রায়, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এসএম শহিদুল্লাহ সবুজ, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ ইব্রাহিম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।