প্রধান শিক্ষককে মেরে জেলে গেলেন সাবেক সভাপতি

প্রধান শিক্ষককে মেরে জেলে গেলেন সাবেক সভাপতি

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককে মারধরের ঘটনায় ওই বিদ্যালয়েরই সাবেক সভাপতি আব্দুস সালামকে (৫০) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃত ব্যক্তি সিরাজগঞ্জের কাজীপুর উপজেলার টিকরাভিটা গ্রামের মৃত জসমত আলীর পুত্র। রোববার রাতে অভিযান চালিয়ে তাঁর নিজ বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। 

থানা সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার টিকরাভিটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীকে বেত দিয়ে আঘাত করেন শিক্ষিকা শামসুন্নাহার। ওই শিক্ষিকা বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সাবেক সভাপতি আব্দুস সালামের মেয়ে। আহত শিক্ষার্থীর অভিভাবকের মৌখিক অভিযোগের ভিত্তিতে প্রধান শিক্ষক আব্দুল মজিদ গত বৃহস্পতিবার শিক্ষিকা শাসসুন্নাহারের নিকট জানতে চান। ওই শিক্ষিকা কোন উত্তর না দিয়ে বিষয়টি তাঁর বাবা আব্দুস সালামকে জানান। পরে তিনি তাঁর দুই পুত্র রবিউল ইসলাম ও বাবলু মিয়াকে নিয়ে ওই বিদ্যালয়ে প্রবেশ করে প্রধান শিক্ষককে এলোপাথারি মারপিট করেন। পরে তাঁর ডাকচিৎকারে স্থানীয়রা এসে তাঁকে উদ্ধার করেন। এই ঘটনায় পরদিন প্রধান শিক্ষক বাদী হয়ে বিদ্যালয়ের সাবেক সভাপতি আব্দুস সালাম ও তার দুই পুত্রকে আসামি করে কাজীপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

কাজীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শ্যামল কুমার দত্ত সোমবার সন্ধ্যায় গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, গ্রেপ্তারকৃত ওই আসামিকে আজ (সোমবার) দুপুরে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।