বঙ্গবন্ধু সেতুর টোল বৃদ্ধি করে প্রজ্ঞাপন

বঙ্গবন্ধু সেতুর টোল বৃদ্ধি করে প্রজ্ঞাপন

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ



এক দশক পর বাড়ল বঙ্গবন্ধু সেতুর টোল। একই সঙ্গে টোল বাড়ানো হয়েছে মুক্তারপুর সেতুরও। গতকালই এ-সংক্রান্ত এক প্রজ্ঞাপন জারি করেছে সেতু বিভাগ। এর আগে গত জুনে বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষের ১১০তম বোর্ড সভায় বর্ধিত টোলহার-সংক্রান্ত প্রস্তাবে অনুমোদন দিয়েছিল সংস্থাটির পরিচালনা পর্ষদ। সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, সবকিছু ঠিক থাকলে আজ দিনশেষে মধ্যরাত থেকে নতুন টোলহার কার্যকর করা হবে।

বঙ্গবন্ধু সেতু চালু হওয়ার পর প্রথম টোলহার নির্ধারণ করা হয় ১৯৯৭ সালে। এর ১৪ বছর পর ২০১১ টোলহার ১৭ শতাংশ বাড়ানোর ঘোষণা দেয় সরকার। ওই ঘোষণার এক দশক পর নতুন করে ১৭ শতাংশ হারে টোল বাড়ানো হলো সেতুটির।

প্রজ্ঞাপনের তথ্য অনুযায়ী, এখন থেকে বঙ্গবন্ধু সেতু পারাপার হতে একটি মোটরসাইকেল থেকে ৫০ টাকা, কার-জিপের মতো হালকা যানবাহন থেকে ৫৫০ টাকা, মাইক্রো/পিকআপের মতো দেড় টনের কম ওজনের যানবাহন থেকে ৬০০ টাকা, ছোট বাস (৩১ আসন) থেকে ৭৫০ টাকা ও বড় বাস (৩২ আসনের বেশি) থেকে ১ হাজার টাকা টোল আদায় করা হবে। একইভাবে ছোট ট্রাক (পাঁচ টন) থেকে ১ হাজার টাকা, পাঁচ থেকে আট টনের মাঝারি ট্রাক থেকে ১ হাজার ২৫০ টাকা ও আট থেকে ১১ টনের মাঝারি ট্রাক থেকে ১ হাজার ৬০০ টাকা আদায় করা হবে। অন্যদিকে ট্রাক ও ট্রেইলারের এক্সেল লোড হিসাবে ধরে সমজাতীয় যানবাহনের তিনটি নতুন শ্রেণী তৈরি করা হয়েছে। এর মধ্যে তিন এক্সেলের ট্রাক থেকে ২ হাজার টাকা, চার এক্সেলের ট্রেইলার থেকে ৩ হাজার টাকা ও চার এক্সেলের বেশি ট্রেইলারের জন্য ৩ হাজার টাকার পাশাপাশি বাড়তি প্রতি এক্সেলের জন্য ১ হাজার টাকা করে টোল আদায় করা হবে। আর সেতু দিয়ে ট্রেন চলাচলের জন্য বার্ষিক ট্যারিফ ৫০ লাখ থেকে বাড়িয়ে ১ কোটি টাকায় উন্নীত করা হয়েছে।

দেশের গুরুত্বপূর্ণ এ দুই সেতুর টোলহার বৃদ্ধি প্রসঙ্গে জানতে চাইলে সেতু বিভাগের সচিব আবু বকর সিদ্দীক বলেন, প্রায় এক দশক পর বঙ্গবন্ধু সেতুর টোল বাড়ল। আর মুক্তারপুর সেতু চালুর পর এ প্রথমবার টোল বাড়ল। নতুন টোলহার কার্যকরের জন্য সফটওয়্যার হালনাগাদের কিছু কাজ বাকি আছে। আমরা আশা করছি আগামীকাল (আজ) রাত ১২টার পর থেকে নতুন টোলহার কার্যকর করা সম্ভব হবে।