বিষ্ময়কর এক ফুল ও ফল ‘চালতা’!

বিষ্ময়কর এক ফুল ও ফল ‘চালতা’!

কালের আবর্তে সময়ের পরিধিতে অপরুপ দৃষ্টিনন্দন ফুল ও বহুবিধ ঔষধি গুণসম্পন্ন বিষ্ময়কর ফুল ও ফল ‘চালতা’ বিলুপ্তির পথে! চালতা ফুলের বিকাশ ও পরিপূর্ণতা বড়ই বৈচিত্রময়। একটি পরিপূর্ণ প্রস্ফুটিত চালতা ফুল কতটা সৌন্দর্যময় তা স্বচোখে না দেখলে বোঝারই উপায় নেই ! চালতা ফল বহুবিধ ঔষধি গুণসম্পন হলেও মূলত এর আচার দেশের নারীদের জন্য লোভনীয় ও মুখরোচক খাবার হিসাবে ব্যাপক সমাদৃত। 

যথাযথ উদ্যোগের অভাবে দিন দিন আবহমান গ্রাম বাংলা থেকে হারিয়ে যাচ্ছে এ গাছটি।

জানা গেছে, একটি চালতা গাছ বছরে একবারই ফল ধরে। প্রতিটি চালতা ফল স্বাভাবিকভাবে ২৫০ গ্রাম থেকে প্রায় ৫০০ গ্রাম পর্যন্ত ওজন হয়ে থাকে। চালতা গাছে প্রথমে ফল ধরে। ফলের আকার যখন ডিমর আকৃতি ধারণ করে তখন ওই ফলের মধ্যে থেকে অপরুপ, বাহারী, বিরল ধরনের ফুল ফোটে। চালতার ফুল সাধারণত রাতের আঁধার ফোঁটে । এ গাছ ফুল ফোঁটার একদিনের মধ্যেই ফুলের পাপড়ি নিস্তেজ হয়ে ঝরে পড়ে। একদিনের মধ্যেই পরিপূর্ণ প্রস্ফুটিত একটি ফুল ফুঁটে তা ঝরে ফলের জন্ম দেয়। এ সময় মধু সংগ্রহের জন্য মৌমাছির আনাগানা ঘটে। মৌমাছিরা চালতার ফুল থেকে মধু আহরণ করতে  গিয়ে এক ফুল থেকে অন্য ফুলে বসে। আর এভাবেই চালতা ফলের পরাগায়ন ঘটে। অতীতে দেশের বিভিন্ন স্থানে বিষ্ময়কর ও বহুবিধ ঔষধি গুনসম্পন্ন এ চালতা ফুল ও ফল দেখা গেলেও কালক্রমে তা হারিয়ে যাচ্ছে দৃশ্যপট থেকে।