রাজশাহী বিভাগের সেরা বিতার্কিক হলেন সিরাজগঞ্জের সুমাইয়া

রাজশাহী বিভাগের সেরা বিতার্কিক হলেন সিরাজগঞ্জের সুমাইয়া

এক্সপ্রেস ডেস্কঃ



জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ-২০২২ প্রতিযোগিতার উপজেলা, জেলা ও বিভাগীয় পর্যায়ে বিতর্ক (একক) বিভাগে শ্রেষ্ঠ বিতার্কিক হওয়ার গৌরব অর্জন করেছেন সরকারী আকবর আলী কলেজের শিক্ষার্থী ও সিরাজগঞ্জের সন্তান সুমাইয়া সোহা।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের আয়োজনে এবং রাজশাহী বিভাগীয় পর্যায়ের একক বিতর্ক প্রতিযোগিতায় (গ-বিভাগ) শ্রেষ্ঠ শিক্ষার্থী হিসেবে তালিকায় নাম আসে সুমাইয়া সোহার। পরবর্তীতে জেলা শিক্ষা অফিস থেকে তার সম্মাননা স্মারক ও সনদপত্র গ্রহণ করেন।

সিরাজগঞ্জ জেলার উল্লাপাড়া উপজেলার শ্যামলীপাড়া গ্রামের মোঃ আলী আকবর ও সেলিনা পারভিন দম্পতির সন্তান সুমাইয়া সোহা। সে সিরাজগঞ্জের  সরকারি আকবর আলী কলেজের বিজ্ঞান বিভাগের ২য় বর্ষের শিক্ষার্থী। এবারের জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ-২০২২ এর প্রতিযোগিতায় সরকারি আকবর আলী কলেজের হয়ে উপজেলা পর্যায়ে বিতর্ক প্রতিযোগীতায় অংশগ্রহণ করেন তিনি।

বিতর্কের ইতিবৃত্ত সম্পর্কে জানতে চাইলে বিতার্কিক সুমাইয়া সোহা বলেন, লেখাপড়ার পাশাপাশি ছোট বেলা থেকেই কো-কারিকুলাম শিক্ষায় মনোনিবেশ ছিল আমার। মাধ্যমিকে পড়ার সময় স্কুলে দেখেছি বিতর্ক প্রতিযোগিতা হতো, সেখানে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে বিতর্ক হতো। সবাই বিভিন্ন তর্ক যুক্ত দিয়ে উপস্থাপনা করতো। সেগুলো দেখেই বিতর্ক চর্চার দিকে আগ্রহ হয় আমার। শুরু করি বিতর্ক চর্চা।

তিনি আরও বলেন, বাবা-মা আমাকে কখনো নিরাশ করতো না। আমাকে সবসময় উদ্দীপনা ও সাহস দিতেন। আমিও লেখাপড়ার পাশাপাশি এসব প্রচেষ্টা চালাতাম। কলেজ জীবনে এবার সুযোগ পেয়েছিলাম উপজেলা পর্যায়ে বিতর্কে অংশগ্রহণ করার। সেই সুযোগ কাজে লাগিয়েই আমি উপজেলায় সেরা হয়ে সিরাজগঞ্জ জেলায় যায়। সিরাজগঞ্জ জেলাতেও প্রথম হয়ে রাজশাহী বিভাগে বিভাগীয় পর্যায়ের জন্য নির্বাচিত হয়। বিভাগীয় পর্যায়েও সেরা হয়েছি। আমি গর্বিত, আমি নিজের প্রচেষ্টায় সফল হয়েছি।

সুমাইয়ার বাবা মোঃ আলী আকবর গর্ব করে বলেন, নিজেকে এখন স্বার্থক পিতা মনে হয়। আমার মেয়ে পুরো রাজশাহী বিভাগের সেরা বিতার্কিক নির্বাচিত হয়েছে। এর চেয়ে বড় সুখবর পৃথিবীতে আর কি বা হতে পারে। আমার মেয়ের জন্য পুরো পরিবার গর্বিত।