রায়গঞ্জে বিএনপি নেতাকে নৌকার কান্ডারী: আ'লীগের বিক্ষোভ

রায়গঞ্জে বিএনপি নেতাকে নৌকার কান্ডারী: আ'লীগের বিক্ষোভ

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ



সিরাজগঞ্জের রায়গঞ্জ উপজেলা ৮নং পাঙ্গাসী ইউনিয়নে বিএনপি নেতাকে নৌকা প্রতীক দেয়ায় প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ।

মঙ্গলবার (১২ অক্টোবর) বিকেলে পাঙ্গাসী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে এ বিক্ষোভ ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। তৃনমূল আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীসহ সর্বস্তরের জনগন এ বিক্ষোভ সমাবেশে অংশ নেন।

এ ঘটনায় আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বরাবর চিঠি ও দিয়েছে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ।

এ সময় বক্তারা বলেন, পাঙ্গাসী ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ড দেউলমুড়া গ্রামের মৃত আব্দুল জব্বার খানের ছেলে রফিকুল ইসলাম খান নান্নু আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন। কিন্তু তিনি ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সদস্য নয়, বরং ১ নম্বর ওয়ার্ড বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে দায়িত্বে আছেন। তিনি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে আওয়ামী লীগের নয় বরং বিএনপির এজেন্ডা বাস্তবায়ন করবেন।  

ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রাশেদ রায়হান জয় বলেন, ৩০-৪০ বছরের পরীক্ষিত নেতাকর্মীদের বাদ দিয়ে রফিকুল ইসলাম খান নান্নুকে দলীয় মনোনয়ন দেওয়ায় আমরা চরমভাবে হতাশ ও ক্ষুব্ধ। এ ঘটনার নিন্দা প্রকাশ করছি।

দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী আশরাফুল আলম বলেন, এমন প্রার্থী নির্বাচিত হলে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও আওয়ামী লীগের আদর্শ বাস্তবায়ন করা মোটেও সম্ভব নয়। তার দলীয় মনোনয়ন বাতিল করে আওয়ামী লীগের ত্যাগী কোনো ব্যক্তিতে দেওয়ার অনুরোধ জানান তিনি।

এ সময় আরও বক্তব্য রাখেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি আব্দুল বারি, চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম, আওয়ামী লীগ নেতা মতিয়ার রহমান, ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি সাদ্দাম হোসেন ও স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা সিদ্দিকুর রহমান প্রমুখ।

এ সময় তারা আগামী ১১ নভেম্বর অনুষ্ঠেয় পাঙ্গাসী ইউপি নির্বাচনে নৌকার প্রার্থী বিএনপি নেতা মো. রফিকুল ইসলাম নান্নুর নাম বাদ দিয়ে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী নেতাদের মধ্য থেকে যে কাউকে মনোনয়ন দেওয়ার জন্য আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে জোর দাবি জানান।

প্রসঙ্গত ৭ অক্টোবর কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ ‘একক’ প্রার্থী হিসেবে রফিকুল ইসলাম নান্নুর নাম ঘোষনা করে। এ খবর সরিয়ে পড়লে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মীরা ক্ষোভে ফেটে পড়েন। অনেকেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে বিএনপি নেতার হাতে নৌকা তুলে দেওয়ায় তীব্র নিন্দা জানিয়ে ক্ষুদ্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে স্ট্যাটাস দেন। তাতে আওয়ামী লীগের শত শত নেতা-কর্মী ও সমর্থক নিন্দা জানানোর পাশাপাশি তাদের ক্ষুদ্ধ মন্তব্য তুলে ধরেন। যা ব্যাপক ভাইরাল হয়।