সিরাজগঞ্জে শশুরবাড়ি থেকে জামাইয়ের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

সিরাজগঞ্জে শশুরবাড়ি থেকে জামাইয়ের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

বেলকুচি ডেস্কঃ



সিরাজগঞ্জের এনায়েতপুর থানার ভাঙ্গাবাড়ি গ্রামে শ্বশুর বাড়ি থেকে জামাইয়ের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত সাইদুল ইসলাম (৩৫) বারুপুর গ্রামের বেল্লাল হোসেনের ছেলে। এ ঘটনার পর শ্বশুরবাড়ির লোকজনকে পাওয়া যায়নি।

তবে নিহতের চাচি চাম্পা খাতুন অভিযোগ করে জানান, গত ১২ বছর আগে এনায়েতপুর থানার বারুপুরের হোসেনের ছেলে তেল ব্যবসায়ী সাইদুলের সাথে ভাঙ্গাবাড়ী গ্রামের রায়হান আলীর মেয়ে ফতেমা খাতুনের বিয়ে হয়। ৬ বছরের সংসার জীবনে দুই সন্তান জন্মের পর সাইদুল মালয়েশিয়া চলে যায়। এরপর ফতেমা বাবার বাড়িতে বসবাস করতে থাকে। একপর্যায়ে সে পরকীয়ায় আসক্ত হয়। যার কারণে তাদের মধ্যে বিবাহ বিচ্ছেদও ঘটে।

নিহতের চাচি আরও জানান, গত কোরবানির ঈদের আগে দেশে ফিরলে তারা আবারও নতুন করে সংসার শুরু করে এবং শ্বশুর বাড়িতেই থাকে সাইদুল। তবে পারিবারিক কলহ অব্যাহত থাকে। বুধবার রাতে এ নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে আবারও বিবাদ শুরু হয়। কলহের একপর্যায়ে ফতেমা খাতুন এবং তার বাড়ির লোকজন মিলে সাইদুলকে হত্যা করে বৃহস্পতিবার ভোররাতে বাড়ির বাইরে আম গাছের ডালের সাথে গলায় রশি দিয়ে ঝুলিয়ে রাখে। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার করে।

এনায়েতপুর থানার ওসি আনিসুর রহমান বলেন, আমরা ঘটনাটি জানতে পেরে লাশ উদ্ধার করে সিরাজগঞ্জ বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছি। ময়নাতদন্তের পর হত্যার রহস্য জানা যাবে।